আজ- ২০শে জুন, ২০১৮ ইং, ৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বৃহস্পতিবার  রাত ১২:৫৩

আজ পবিত্র শবেমেরাজ

 

দৃষ্টি নিউজ:

ফজিলতে ভরা মহিমান্বিত রজনী শবে মেরাজ আজ। এ উপলক্ষে বিশ্বের মুসলমানরা নফল নামাজ, কোরআন তেলাওয়াত, দরুদ পাঠ ও জিকির-আযকারের মধ্য দিয়ে সারা রাত পার করবেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠন মসজিদ ও অন্যান্য স্থানে মহান আল্লাহর রহমত কামনায় বিশেষ মোনাজাত ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে। মহিমান্বিত এ রাতে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) আলস্নাহর সান্নিধ্য লাভ করেন এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ের হুকুম নিয়ে পৃথিবীতে প্রত্যাবর্তন করেন। একই সময়ে মহানবী (সা.) সৃষ্টিজগতের সব কিছুর রহস্য অবলোকন করেন।
ফারসি শব্দ ‘শব’ এর অর্থ রাত বা অন্ধকার; আরবি শব্দ ‘মেরাজ’-এর অর্থ উর্ধ্বারোহণ, মই বা সিঁড়ি। অর্থাৎ শাব্দিক অর্থে- অন্ধকারে বা রাতে সিঁড়ি বাওয়া বা উর্ধ্বারোহণ করা। যার মর্মার্থ- অন্ধকার, বর্বর যুগে (আইয়ামে জাহিলিয়া) জ্ঞানের উৎকর্ষতা। আজ সূর্যাস্তের পর থেকে রোববার ভোর পর্যন্ত পবিত্র মেরাজের রাত। মুসলমানদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র এ রাত। এ রাতে মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) স্বর্গীয় বাহন বোরাকে চেপে ঊর্ধ্বাকাশে গমন করেন। যা বিশ্বাস করা প্রতিটি মুসলমানের ঈমানি দায়িত্ব। মেরাজের ঘটনা সংঘটিত হয়েছিল আরবি রজব মাসের ২৬ তারিখ রাতে। মহানবী (সা.) তখন শুয়েছিলেন উম্মে হানির ঘরে।
সেখান থেকে জিব্রাইল (আ.) তাকে নিয়ে কাবার হাতিমে যান। জমজমের পানিতে অজু করে বোরাকে আরোহণ করেন মহানবী। মক্কা শরিফ থেকে জেরুজালেমের বাইতুল মুকাদ্দাসে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। সেখানে রাসুল (সা.) নামাজ আদায় করেন।
সপ্তম আকাশে সিদরাতুল মুনতাহায় গমন করেন মহানবী (সা.)। এর আগে আকাশের সাত স্তরে মহানবীকে স্বাগত জানান হজরত আদম (আ.), হজরত ঈসা (আ.), হজরত ইয়াহইয়া (আ.), হজরত ইদ্রিস (আ.), হজরত হারুন (আ.), হজরত মুসা (আ.) এবং হজরত ইব্রাহিম (আ.)। সপ্তম আকাশে পৌঁছে জিব্রাইল (আ.) মহানবীকে জানান, এরপর আর আমার যাওয়ার অনুমতি নেই। বাকি পথ একাই গমন করেন মহানবী। সেখান থেকে নবীজি রফরফ নামের একটি যানে চড়ে আরশে আজিম অভিমুখে রওনা দেন। সত্তর হাজার নূরের পর্দা ভেদ করে তিনি আরশে আজিমে পৌঁছান। সেখানে এক ধনুক দূরত্ব থেকে আল্লাহর সঙ্গে তার কথোপকথন হয়।
পরিশেষে দান করা হয় মহানবীর (সা.) উম্মতদের জন্য পঞ্চাশ ওয়াক্ত নামাজ, যা হজরত মুসার (আ.) সুপারিশে আল্লাহর দরবারে বারবার যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত পাঁচ ওয়াক্ত নির্ণয় করা হয়; কিন্তু দয়াময় আল্লাহ তায়ালা বলে দেন, তোমার উম্মতদের মধ্যে যারা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবে, তারা পঞ্চাশ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ের সওয়াব পাবে।
শবে মেরাজ উপলক্ষে মুসলমান সম্প্রদায়ের অনেকে নফল রোজাও রাখেন। এ ছাড়া দান-সদকা ও শিরনি বিতরণেরও রেওয়াজ রয়েছে।
শবে মেরাজ সাধারণ ছুটির দিন না হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে। দেশের সংবাদপত্রগুলো প্রকাশ করবে বিশেষ নিবন্ধ। রেডিও-টেলিভিশনে বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচার করা হবে। পবিত্র শবে মেরাজ উপলক্ষে এশার নামাজের পর মসজিদে মসজিদে বিশেষ বয়ান অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া বিভিন্ন সংগঠন এ উপলক্ষে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno