আজ- ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  রাত ১০:৪২

টাঙ্গাইলে পুলিশের বিরুদ্ধে ইউপি সদস্যকে অপহরণের অভিযোগ ॥ গোয়েন্দা পুলিশের অস্বীকার

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলের গোয়েন্দা পুলিশের বিরুদ্ধে শহরের আদালত চত্তর থেকে দাইন্যা ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীর হোসেনকে অপহরণের অভিযোগ ওঠেছে। অপরদিকে, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) অপহণের কথা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে ঘটনাটি প্রতিপক্ষ বা তৃতীয় পক্ষের করসাজি হতে পারে বলে ধারনা করছে।
অভিযোগে প্রকাশ, গত ৫ নভেম্বর(রোববার) সকালে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত দায়রা জজ ২নং আদালতে ৬৭৯/১৬ নং মামলায় ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীর হোসেন হাজিরা দেন। আদালত ভবন থেকে বের হওয়ার পর প্রায় সাড়ে ১১ টার দিকে একদল সাদা পোষাকধারী লোক গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) পরিচয়ে তাকে একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশায় উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়। পরে ওই সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালকের মুখে খবর শুনে পরিবারের লোকজন টাঙ্গাইলের গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি), থানা পুলিশ, র‌্যাব ও পিবিআই সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে খোঁজ করেন। কিন্তু কোথাও সন্ধান না পেয়ে গত মঙ্গলবার টাঙ্গাইল মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি(জিডি নং-৪৫৮, তাং-০৭/১১/২০১৭ইং) করেন। শুক্রবার(১০ নভেম্বর) সকালে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে ওই অভিযোগ করেন, অপহৃত ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীরের স্ত্রী মোছা. রেসমা বেগম।
সংবাদ সম্মেলনে ৭ ও ৪ বছরের দুই সন্তান নিয়ে উপস্থিত হয়ে লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, সংসারের একমাত্র উপার্জনকারী ছিলেন, দাইন্যা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পর পর দুইবারের নির্বাচিত সদস্য ও দাইন্যা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন। তাকে না পেয়ে পরিবারটি চরম নিরাপত্তাহীনতায় মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে দুই সন্তান নিয়ে উপস্থিত হন, নিখোঁজ ইউপি সদস্যেে স্ত্রী রেসমা বেগম। ইনসেটে জাহাঙ্গীর হোসেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মোছা. রেসমা বেগম জানান, তিনি বিশ্বাস করেন গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) তার স্বামীকে অপহরণ করে গোপণস্থানে রেখেছে। অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তাঁর স্বামীর নামে হত্যা ও অস্ত্র আইন সহ বিভিন্ন অপরাধের ৫টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে, সবক’টি মামলায় তিনি জামিনে রয়েছেন। তিনি আশঙ্কা করছেন, ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীর হোসেনকে গোয়েন্দা পুলিশ হত্যা ও গুম করে ফেলতে পারে! এজন্যই তিনি সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের সহায়তা প্রত্যাশা করছেন। সংবাদ সম্মেলনে তাঁকে সহযোগিতা করেন, দাইন্যা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি জিতেষ চৌধুরী, ইউনিয়ন কৃষকলীগের আহ্বায়ক মো. ফরজ আলী, টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির(এ) সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক জহির রায়হান প্রমুখ। এ সময় টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাফর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক কাজী জাকেরুল মওলা সহ বিভিন্ন প্রিণ্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধি এবং দাইন্যা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের(ডিবি) অফিসার ইনচার্জ অশোক কুমার সিংহ অপহরণের অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, কিসের ভিত্তিতে তারা এসব কথা বলছেন তা বুঝতে পারছেন না। ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, অবৈধ অস্ত্র রাখা, জমি জবরদখল সহ নানা অভিযোগে প্রায় এক ডজন মামলা রয়েছে। এলাকায় তাঁর রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রতিপক্ষও অত্যন্ত শক্তিশালী- সেজন্য তিনি নিজেই বেশিরভাগ সময় আত্মগোপণে থাকতেন। জাহাঙ্গীর হোসেনের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি তারা খতিয়ে দেখছেন এবং এর পিছনে কোন রাঘব বোয়াল জড়িত কিনা বা কোন হীন উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখছেন। তবে ঘটনাটি প্রতিপক্ষ বা তৃতীয় পক্ষের কারসাজি হতে পারে বলেও ধারণা করছেন তারা।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno