আজ- ১৬ই জুলাই, ২০১৮ ইং, ১লা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ সোমবার  সকাল ৮:৫৫

টাঙ্গাইলে হঠাৎ সবজির দাম চড়া ॥ কাঁচা মরিচের ঝাঁঝ অত্যধিক

 

দৃষ্টি নিউজ:


টাঙ্গাইল শহরের কাঁচা বাজার গুলোতে হঠাৎ করে নিত্য প্রয়োজনীয় শাক-সবজির দাম বেড়ে গেছে। হঠাৎ করে ৪০ টাকা কেজি দরের কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়। এছাড়া একেক বাজারে পণ্য সামগ্রীর ভিন্ন ভিন্ন দাম লক্ষ করা গেছে। গত কয়েকদিনের বৃষ্টির কারণে কাঁচা মরিচ সহ সবজির বাগানে পানি জমে থাকায় বাজারে আমদানি কম হওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
মঙ্গলবার(১০ জুলাই) সরেজমিনে শহরের পার্ক বাজার, বটতলা বাজার, ছয়আনী বাজার, সাবালিয়া বাজার, বৈল্যা বাজার, আমিন বাজার(গোডাউন বাজার) সহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, দু’দিন আগেও কাঁচা মরিচের(কালো) কেজি ছিল ৩০-৪০টাকা, বর্তমানে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৬০ টাকায়। বর্তমানে প্রতি কেজি করলা ৪০-৪৬ টাকা, পটল ৩৬-৪০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০-৪৪ টাকা, কাকরোল ৩২-৪০টাকা, বেগুন ৪০-৪৮ টাকা, ঝিঙা ৪২-৪৪ টাকা, শশা(দেশি) ৬০-৮০ টাকা, শশা(হাইব্রিড) ৪৬-৫০ টাকা, পেঁপে ৩৬-৩৮ টাকা, শিবচরন(শিবা) ৪০-৪৪টাকা, লতা ৪৪-৫০টাকা, মিষ্টি কুমড়া(মাঝারি) ৬০-৭৫ টাকা, চালকুমড়া(মাঝারি) ১৫-২৫ টাকা, লাল শাক প্রতিকেজি ৩৬-৪০ টাকা, পুঁই শাক ৪০-৪৪ টাকা, লাউ শাক প্রতি আটি ২৫-৩০ টাকা, গোলআলু(মাঝারি) প্রতি কেজি ২৫-৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আবার পার্কবাজারে কাঁচা মরিচ(কালো) প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ১৩০-১৪০ টাকায়; সেই একই মরিচ বটতলা ও সাবালিয়া বাজারে বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১৪০-১৬০টাকা। বৈল্যা বাজরের ৩২-৩৪ টাকার পটল ছয়আনী বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৩৬-৪০টাকা। বিভিন্ন বাজারে এ রকম নানা পণ্যের ভিন্ন ভিন্ন দাম লক্ষ করা গেছে।
পার্ক বাজারের খুচরা সবজি বিক্রেতা শাহজাহান, আ. করিম, রশমত আলী সহ অনেকেই জানান, শহরের পার্ক বাজারে সাধারণত পাইকারি হারে পণ্য বিক্রি করা হয় সেজন্য দাম কিছুটা কম থাকে। বেশিরভাগ খুচরা বিক্রেতারা পার্কবাজার থেকে শাক-সবজি কিনে শহরের বিভিন্ন বাজারে চাহিদা অনুযায়ী দাম কম-বেশি নির্ধারন করে বিক্রি করেন। এজন্যই বিভিন্ন বাজারে শাক-সবজির দাম কিছুটা কম-বেশি হয়ে থাকে।
ছয়আনী ও সাবালিয়া বাজারের নিয়মিত ক্রেতা নিপা খান, গৃহবধূ শারমিন আক্তার, শিক্ষক হুরমুজ আলী, ব্যবসায়ী শীতল সাহা জানান, গত দু’দিনের তুলনায় কাঁচা মরিচের দাম হঠাৎ করে কয়েকগুন বেড়েছে। এতে বাজারের নির্ধারিত বাজেটে কম পড়ায় আধা কেজির স্থলে তারা ২৫০ গ্রাম কাঁচা মরিচ কিনেছেন। অন্যান্য শাক-সবজির দামও হঠাৎ করেই প্রতি কেজিতে ৫-২০ টাকা বেড়েছে। অধিকাংশ ক্রেতা মনে করেন, জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহরের মাছ-মাংসের বাজারের ন্যায় শাক-সবজি বাজারগুলোতেও মাঝে মাঝে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করলে বাজার অনেকটা নিয়ন্ত্রণে থাকবে।
পার্ক বাজারে সবজি বিক্রি করতে আসা কৃষক আব্দুল মান্নান, জমশের আলী, হায়াত আলী সহ আরো কয়েকজন জানান, গত কয়েকদিনে থেমে থেমে বৃষ্টি পড়ায় ও নিচু জমিতে বর্ষার পানি ঢুকে পড়ায় আবাদের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। আর কাঁচা মরিচের ক্ষেতে গাছের গোড়ায় পঁচন ধরেছে, মরিচ ধরছে না। ফলে উৎপাদন হচ্ছেনা, এজন্য যা আছে তাই বাজারে বিক্রি করে নতুন আবাদের চেষ্টা করছেন।
বটতলা কাঁচা বাজারের শাক-সবজি বিক্রেতা মো. হানিফ উদ্দিন, শওকত, ফকির সহ অনেকেই জানান, টাঙ্গাইল জেলা শহরের আশ-পাশের এলাকায় প্রচুর শাক-সবজি উৎপাদন হয়। কৃষকরা উৎপাদিত শাক-সবজি পার্ক বাজারে এনে পাইকারি বিক্রি করেন। সেখান থেকে কিনে এনে শহরের ছোট ছোট বাজারগুলোতে সকাল-বিকাল বিক্রি করা হয়। গত কয়েকদিনের বৃষ্টি ও নিচু জমিতে বর্ষার পানি ঢুকে পড়ায় শাক-সবজি আবাদ প্রায় নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে, বাজারে আমদানি কম হওয়ায় বাজার দর কিছুটা বেড়েছে। তারা মনে করেন, এই দাম বৃদ্ধিটা সাময়িক বৃষ্টি থেমে গেলে খুব তারাতারিই দাম কমে স্বাভাবিক হবে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno