আজ- ২২শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  রাত ৩:৫৮

টাঙ্গাইল বিবি হাইস্কুলের ছাত্রীদের শতভাগ নিরাপত্তার দাবি

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানীসহ শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে মঙ্গলবার(২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করছে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা যৌন হয়রানীতে জড়িত সকল শিক্ষকের শাস্তি দাবি করেন। এছাড়া শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধ, যৌন হয়রানীতে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক সাইদুর রহমানের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতকরণ এবং তাকে সহায়তা ও রক্ষাকারী সহারকারী শিক্ষক এ্যানি সুরাইয়া, হাবিবুর রহমান, মাকসুদা রানা ও প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অবিভাবক কমান্ডার ফেরদৌস আলম রঞ্জু বীরপ্রতীক, অ্যাডভোকেট শামীম চৌধুরী দয়াল, হাসান রেজা অপু, খন্দকার খালেদা ফেরদৌস, সুলতানা সরোয়ার এবং বিবি সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফারজানা হোসাইন মিতু, তাহিয়া তাবাসছুম প্রমুখ।
নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফারজানা হোসাইন মিতু জানান, দীর্ঘদিন ধরে সাঈদুর রহমান অনেককে বিভিন্নভাবে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। বিষয়টি একাধিকবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদারকে জানানোর পরও তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি। তিনি শিক্ষক সাইদুর রহমানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদারের অপসারণ দাবি করেন। তিনি বলেন, টিফিনের জন্য প্রতিমাসে আমাদের কাছ থেকে টাকা নেয়া হয়। অথচ টিফিনে অস্বাস্থ্যকর খাবার দেয়া হয়। আমরা স্বাস্থ্যকর খাবারের দাবি করছি।
অপর শিক্ষার্থী তাহিয়া তাবাসছুম বলেন, আমাদের নিরাপত্তার জন্য বিদ্যালয়ে নিরাপত্তা সেল, স্বাস্থ্যকর টিফিন, শতভাগ মহিলা শিক্ষক ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকের কোচিং বাণিজ্য বন্ধের দাবি করছি। পাশাপাশি সহকারী শিক্ষক সাইদুর রহমানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ সহকারী শিক্ষক এ্যানি সুরাইয়া, হাবিবুর রহমান, মাকসুদা রানা ও প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদারের বদলির দাবি করছি।
সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকরা বলেন, বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্রীদের দীর্ঘদিন ধরে ক্লাসে ও ক্লাসের বাইরে অশালীন মন্তব্য ও কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন শিক্ষক সাইদুর রহমান। শুধু ছাত্রীই নয়, অভিভাবকদের নিয়েও তিনি অশালীন মন্তব্য করতেন। সুযোগ পেলেই ছাত্রীদের শরীরে হাত দিতেন এবং মানসিক নির্যাতন করতেন। এছাড়াও বিদ্যালয়ের বাইরে শিক্ষার্থীরা তার কাছে প্রাইভেট না পরলে, পরীক্ষায় কম নম্বর দেয়া সহ নানাবিধ অভিযোগ ছিল ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে।
উল্লেখ্য, সোমবার(১ অক্টোবর) ছাত্রীদেরকে আপত্তিকর মন্তব্য ও যৌন হয়রানীর অভিযোগে টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাইদুর রহমানকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেয় উত্তেজিত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। পরে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সোমবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহরিয়ার রহমান অভিযুক্ত শিক্ষককে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno