আজ- ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  রাত ১০:৪৩

ঢাকা-বঙ্গবন্ধুসেতু-ঢাকা কম্যুটার ট্রেনের যাত্রা শুরু

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ঢাকা-বঙ্গবন্ধুসেতু(পূর্ব)-ঢাকা রুটে টাঙ্গাইল কম্যুটার(commuter) ট্রেন সার্ভিস চালু করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঢাকা-টাঙ্গাইল রুটে কম্যুটার ট্রেন সার্ভিস চালু করায় তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে টাঙ্গাইলবাসী।
বৃহস্পতিবার(৮ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টায় কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে টাঙ্গাইল জেলাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশিত কম্যুটার ট্রেন সার্ভিস এর শুভ উদ্বোধন করেছেন রেল মন্ত্রী মজিবুল হক। পরে রাত ৮টায় টাঙ্গাইল ঘারিন্দা রেল ষ্টেশনে এসে কম্যুটার(commuter) ট্রেনটি পৌঁছায়। টাঙ্গাইল-৫(সদর) আসনের সাংসদ আলহা ছানোয়ার হোসেন ট্রেনের প্রথম যাত্রী হয়ে কমলাপুর থেকে টাঙ্গাইল পর্যন্ত আসেন। এসময় ‘ঢাকা-টাঙ্গাইল সরাসরি ট্রেন চাই’ আন্দোলনের সাথে জড়িত নেতৃবৃন্দ সাংসদের সঙ্গী হন। পরে ট্রেনটি বঙ্গবন্ধুসেতু(পূর্ব) স্টেশনের দিকে ছেড়ে যায়।
সকাল থেকে সারাদিনই ঘারিন্দা স্টেশনে উৎসুক সাধারণ মানুষের আনাগোনা লক্ষ্য করা যায়। বিকাল থেকে সকল শ্রেণির মানুষের ঢল নামে ঘারিন্দা রেল স্টেশনে। তিল ধারনের জায়গা ছিল না স্টেশনে। প্রাইভেট কার, মোটরসাইকেল, সিএনজি চালিত অটোরিকশা, ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক, এমনকি অনেকে শহর থেকে পাঁয়ে হেঁটেও এসেছিলেন স্বপ্নের ট্রেনটিকে একনজর দেখার জন্য। এসময় ঘারিন্দা রেল স্টেশনে উৎসবমূখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। কেউ বাঁশি বাজিয়ে, ফানুস উড়িয়ে, আতশবাজি পুড়িয়ে আনন্দ করতে থাকে। বাঁধ ভাঙা উল্লাস যেন থামতেই চায় না।
পরে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলামের হাতে কম্যুটার ট্রেনের একটি প্রতীকী চাবি তুলে দেন টাঙ্গাইল-৫(সদর) আসনের সংসদ সদস্য মো. ছানোয়ার হোসেন ও টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তানভীর হাসান(ছোট মনির)। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান আনসারী, টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, বাস-কোচ মালিক সমিতির মহাসচিব গোলাম কিবরিয়া (বড় মনি) প্রমুখ। শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
ঘারিন্দা রেল স্টেশনের মাঠার মো. জালাল উদ্দিন জানান, ‘টাঙ্গাইল কমিউটার’ নামের ওই ট্রেনে মোট ৯টি বগি রয়েছে। প্রতিদিন এক সাথে প্রায় ৬০০ মানুষ যাতায়াত করতে পারবে। টাঙ্গাইল থেকে ঢাকার ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ৫০ টাকা।
উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ৩০ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টাঙ্গাইলের ইব্রাহিমাবাদ রেল স্টেশনের(বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্ব) পাশে এক জনসভায় টাঙ্গাইলে কম্যুটার ট্রেন দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। সে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে বৃহস্পতিবার(৮ নভেম্বর) বিকালে আনুষ্ঠানিকভাবে রেল মন্ত্রী মজিবুল হক ঢাকা-বঙ্গবন্ধুসেতু(পূর্ব)-ঢাকা কম্যুটার(commuter) ট্রেন সার্ভিস চালু করেন।

এ ট্রেন কোথায় থামানো হবে এবং কত টাকা ভাড়া:-

  • কমলাপুর স্টেশন থেকে তেজগাঁও – ২০ টাকা – ৭ কি.মি পথ ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে বনানী – ২০ টাকা – ১০ কি.মি পথ ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট – ২০ টাকা – ১৩ কি.মি পথ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে ঢাকা বিমান বন্দর – ২০ টাকা – ১৯ কি.মি পথ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে টঙ্গী – ২০ টাকা– ২৩ কি.মি পথ ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে ধীরাশ্রম – ২০ টাকা – ২৯ কি.মি ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে জয়দেবপুর – ২০ টাকা – ৩৪ কি.মি ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে মৌচাক – ২৫ টাকা – ৫০ কি.মি পথ ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক – ৩০ টাকা – ৫৮ কি.মি পথ ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে মির্জাপুর – ৩৫ টাকা – ৭১ কি.মি ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে মহেড়া – ৪০ টাকা – ৮১ কি.মি ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে টাঙ্গাইল – ৫০ টাকা – ৯৭ কি.মি ।
  • কমলাপুর স্টেশন থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব – ৬০ টাকা – ১১৮ কি.মি ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno