আজ- ১০ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সোমবার  রাত ১০:৪৩

দুর্যোগে-দুর্দিনে আল্লাহকে মনে পড়ে

 

:: মুফতি তাজুল ইসলাম ::

সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাস মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি। আত্মার জগতে মানুষ আল্লাহর ইবাদতের অঙ্গীকার করে দুনিয়ায় এসেছে। পরে দুনিয়ার চাকচিক্য, আসবাব-উপকরণ দেখে মানুষ সেই আনুগত্যের কথা ভুলে যায়।

কিন্তু জীবন চলার বাঁকে বাঁকে মানুষ নিজ স্রষ্টাকে স্মরণ করার, অনুভব করার সুযোগ পায়। তখন মুসলিম-অমুসলিম, আস্তিক-নাস্তিক সবাই আল্লাহকে স্মরণ করে। বিপদমুক্তির জন্য কায়মনোবাক্যে আল্লাহকে ডাকতে থাকে।

ভোগ-বিলাসিতা, জাগতিক উপকরণ ও দুনিয়ার চাকচিক্য মানুষের ধর্মপ্রবণতার সহজাত প্রবৃত্তিকে ম্লান করে দেয়। মানুষ যখন কঠিন সঙ্কটে পতিত হয় তখন তার মধ্যকার সুপ্ত প্রবৃত্তি জেগে ওঠে। সংকট থেকে মুক্তির জন্য সে বিশুদ্ধচিত্তে আল্লাহকে স্মরণ করে, তার সাহায্য কামনা করে।

অকূল সমুদ্রে জাহাজ যখন অনুকূল বায়ুতে মানুষ গন্তব্যস্থানের দিকে অগ্রসর হয়, যাত্রীদের হৃদয় তখন আনন্দে ভরে যায়। সে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে আরোহীদের চোখেমুখে। ভালো লাগা সীমাহীন অনুভূতিতে একসময় তারা ভুলে যায় নিজেদের দুর্বলতার কথা। অসহায়ত্বের কথা। ভুলে যায় তার স্রষ্টার কথা, প্রভুর কথা। হঠাৎ যখন জাহাজটি সামুদ্রিক ঝড়ে নিপতিত হয়, ওই সব আনন্দোচ্ছল যাত্রী ভয় ও আতঙ্কে দিশাহারা হয়ে পড়ে।

মৃত্যুকে তারা প্রত্যক্ষ করে। একান্ত অনুগত চিত্তে তারা তখন আল্লাহর সাহায্য কামনা করে। সেখানে মুসলিম-অমুসলিম, আস্তিক-নাস্তিক ভেদাভেদ থাকে না। এতে এটাই প্রমাণিত হয় যে মানুষের অন্তরে রয়েছে আল্লাহর তাওহিদ ও একত্ববাদের নিদর্শন।

যত দিন দুনিয়ার আসবাব, উপায়-উপকরণ অনুকূল থাকে, তত দিন মানুষ আল্লাহকে ভুলে গিয়ে পার্থিব জীবন নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। আর উপায়-উপকরণ প্রতিকূল হয়ে গেলে মানুষের ঘোর কেটে যায়। তখন সে স্রষ্টাকে হৃদয় দিয়ে অনুভব করে।

অবস্থান বদল মানবচরিত্রের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। যখন মানুষ বিপদে পড়ে, তখন এক রকম কথা বলে আবার বিপদমুক্ত হলে তার আসল চরিত্র প্রকাশ পায়। মানুষের এই সুবিধাবাদী চরিত্র সম্পর্কে পবিত্র কোরআনে অসংখ্য আয়াত আছে। এখানে ১০টি আয়াত উল্লেখ করা হলো—

এক. ‘সে (মানুষ) যখন বিপদে পড়ে, তখন খুব হা-হুতাশ করে। আর যখন বিপদ কেটে যায়, তখন কৃপণ হয়ে যায়।’ (সুরা : মাআরিজ, আয়াত : ২০-২১)

দুই. ‘সমুদ্রের মাঝখানে যখন তোমরা বিপদে পড়ো, তখন তোমরা (স্বাভাবিক অবস্থায়) আল্লাহ ছাড়া যাদের ডাকো তাদের ভুলে যাও। তারপর যখন আল্লাহ তোমাদের স্থলে (সৈকতে) এনে উদ্ধার করেন, তখন তোমরা (আল্লাহর দিক থেকে) মুখ ফিরিয়ে নাও।’ (সুরা : বনি ইসরাঈল, আয়াত : ৬৭)

তিন. ‘মানুষকে যখন দুঃখ-দৈন্য স্পর্শ করে, তখন সে শুয়ে-বসে-দাঁড়িয়ে আমাকে (আল্লাহকে) ডাকতে থাকে। তারপর আমি যখন তার দুঃখ-দৈন্য দূর করে দিই, তখন মানুষ এমন ভাব করে যেন সে আপতিত দুঃখ-কষ্টের জন্য কখনোই আমাকে ডাকেনি।’ (সুরা : ইউনুস, আয়াত : ১২)

চার. ‘যদি দুঃখ-দৈন্য স্পর্শ করার পর আমি তাকে সুখ ভোগ করাই, তখন সে বলতে থাকে, আমার বিপদ দূর হয়ে গেছে। তখন সে উত্ফুল্ল ও অহংকারী হয়ে যায়।’ (সুরা : হুদ, আয়াত : ১০)

পাঁচ. ‘যখন সমুদ্রের ঢেউ মানুষকে আষ্টেপৃষ্ঠে ঢেকে ফেলে, তখন মানুষ আনুগত্যে বিশুদ্ধচিত্ত হয়ে আল্লাহকে ডাকতে থাকে। কিন্তু যখন (আল্লাহ) তাদের সৈকতে ফিরিয়ে এনে উদ্ধার করেন, তখন দেখা যায় (অধিকাংশ মানুষই অকৃতজ্ঞ) কোনো কোনো মানুষ সরলপথে থাকে।’ (সুরা : লোকমান, আয়াত : ৩২)

ছয়. ‘মানুষকে যখন দুঃখ-দৈন্য স্পর্শ করে, তখন সে একনিষ্ঠভাবে আল্লাহকে ডাকতে থাকে। এরপর আল্লাহ যখন তাকে দয়া করেন, তখন মানুষ ভুলে যায় যে বিপদে পড়ে সে এর আগে আল্লাহকে ডেকেছিল।’ (সুরা : জুমার, আয়াত : ৮)

সাত. ‘মানুষকে বিপদ-আপদ স্পর্শ করলে সে আমাকে (আল্লাহকে) ডাকে। যখন আল্লাহর অনুগ্রহে কষ্ট থেকে মুক্তি লাভ করে, তখন (মানুষ) বলতে থাকে, সে নিজের চেষ্টায়ই এ থেকে মুক্তি লাভ করেছে।’ (সুরা : জুমার, আয়াত : ৪৯)

আট. ‘দুঃখ-দৈন্য স্পর্শ করার পর যখন আমি তাকে দয়া করে সুখের স্বাদ দিই, তখন মানুষ বলতে থাকে, ‘এটা তো আমার প্রাপ্যই ছিল। আমি তো মনে করি না কিয়ামত বলে কিছু আছে।’ …আবার যখন মানুষ বিপদে-আপদে অমঙ্গলে পড়ে যায়, তখন সে দীর্ঘ প্রার্থনায় বসে যায়।’ (সুরা : হা-মিম-সাজদা, আয়াত : ৫০-৫১)

নয়. ‘ওরা (মানুষ) যখন পানিপথে চলতে থাকে, তখন পবিত্র মনে আল্লাহকে ডাকতে থাকে। আর আমি (আল্লাহ) যখন তাদের নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছে দিই, তখন মানুষ শিরক করা শুরু করে।’ (সুরা : আনকাবুত, আয়াত : ৬৫)

দশ. ‘আল্লাহ যখন মানুষকে দয়া ও সম্মানিত করেন, তখন মানুষ বলে, আমার প্রতিপালক আমাকে সম্মানিত করেছেন। আর যখন আল্লাহ মানুষকে পরীক্ষা করার জন্য উপকরণ কমিয়ে দেন, তখন মানুষ বলতে থাকে, আল্লাহ আমাকে হেয় করে দিয়েছেন।’ (সুরা : ফাজর, আয়াত : ১৫-১৬)

মুসলমানদের উচিত সুদিনে-দুর্দিনে আল্লাহকে স্মরণ করা, তাঁর দিকে ছুটে চলা।

সূত্র: বাংলানিউজ২৪ডটকম

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno