আজ- ২৯শে মে, ২০২০ ইং, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ শুক্রবার  সকাল ৬:৪৮

মির্জাপুরে সরকারি পুকুর ভরাট করে জবরদখলের চেষ্টা ব্যর্থ

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার শিল্পাঞ্চল গোড়াই ইউনিয়নের মমিন নগর এলাকায় সরকারি খাস খতিয়ানের ৮৪ শতাংশের একটি পুকুর রাতের আঁধারে ভরাট করে জবরদখল করার চেষ্টা ভন্ডুল করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

মির্জাপুর উপজেলা বিএনপির নেতা ফিরোজ হায়দার খান ওই পুকুর ভরাটের মাধ্যমে জবরদখলের চেষ্টা করছিলেন। গোপনে সংবাদ পেয়ে গত ১৬ মে(শনিবার) উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জুবায়ের হোসেন সরকারি খাস পুকুর ভরাটের কাজ বন্ধ করে দেন।

উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের মমিননগর এলাকার খতিয়ান নং-ইজা-১(৩০৯), দাগ নং- ২৮৬১, শ্রেণি পুকুর ও জমির পরিমাণ ০.৮৪ একর ভূমি মূলত সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত। ভূমিটির ইজারা ও দখল নিয়ে উচ্চ আদালতে রিটপিটিশন মামলা(হাইকোর্ট ৫৭৯১/২০১০নং রীট পিটিশন মোকদ্দমা) রয়েছে।

রিটটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তফসিল বর্ণিত ভূমির শ্রেণি পরিবর্তন, স্থাপনা নির্মাণ ও অনুপ্রবেশ কঠোরভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কিন্তু উপজেলা বিএনপি নেতা ও জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি ফিরোজ হায়দার খান জবরদখলের উদ্দেশ্যে রাতের আঁধারে পুকুরটি ভরাট করছিলেন। খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন পুকুর ভরাটের কাজ ভন্ডুল করে সরকারি সম্পদ রক্ষা করে।

এ বিষয়য়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জুবায়ের হোসেন বলেন, আমরা সরকারি স্বার্থ দেখার জন্য সবসময় সোচ্চার। যদি কোন ব্যক্তি অবৈধ ভাবে সরকারি খাস জমি দখল করতে চায় তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার বিধান রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় পুকুর ভরাটের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক বলেন, খবর পেয়ে পুকুর ভরাটের কাজ বন্ধ করি। সরকারি খাস পুকুর ভরাট করে কেউ যেন অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ ও অনুপ্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে প্রশাসন সতর্ক রয়েছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

 
 

Leave a Comment

 




 
 

 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno