আজ- ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  সকাল ৬:০৪

গোপালপুরে বোমা সদৃশ্য বস্তু ফেলে লাখ টাকা চাঁদা দাবি

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলের গোপালপুর পৌরসভার নন্দনপুর বাজার এলাকায় নির্মাণাধীন ভবন মালিকের কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে চিঠির পাশাপাশি বোমা সদৃশ্য বস্তু ফেলে রেখে ভীতির সৃষ্টি করেছে দুর্বৃত্তরা।

খবর পেয়ে পুলিশ বস্তুটি বালির বস্তা দিয়ে ঘিরে নিরাপদ স্থানে রাখা হয়েছে। বাড়ির বাইরে পুলিশ নিয়েছে। পৌরসভার নন্দনপুর বাজার এলাকার আব্দুর রাজ্জাক ইঞ্জিনিয়ারের নির্মাণাধীন বহুতল ভবনে এ ঘটনা ঘটে। আব্দুর রাজ্জাক একটি বেসরকারি কোম্পানিতে ঢাকায় চাকুরি করেন। তার স্ত্রী ঝর্ণা বেগম প্রথম চিঠিটি দেখতে পান। পরে তিনি বিষয়টি পুলিশকে অবগত করেন।


ঝর্ণা বেগম জানান, বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকালে বাড়ির গেটে তিনি দুইটি চিঠি দেখতে পান। চিঠি পড়ে দুর্বৃত্তদের এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি ও বোমা রাখার বিষয়টি অবগত হন। পরে চিঠিতে উল্লেখিত নির্দিষ্ট স্থানে বোমা সদৃশ্য বস্তু দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। তিনি জানান, চিঠিতে এক লাখ টাকা চাঁদা না দিলে তার ছেলে-মেয়েদের হত্যা করার হুমকি দেওয়া হয়েছে।


দুর্বৃত্তদের দেওয়া চিঠিতে লেখা রয়েছে, এক লাখ টাকা নিয়ে রাস্তায় হেঁটে কিছু দূর গিয়ে একটি চালতা গাছের নিচে চিপসের হলুদ প্যাকেটে রাত দশটার মধ্যে রাখতে হবে। তা না হলে রাত সাড়ে দশটায় ভবনে রাখা রিমোট কন্ট্রোল বোমাটি ফাটিয়ে দেয়া হবে। চিঠিতে রিমোট কন্ট্রোল বোমাটিতে হাত না দিতে এবং পুলিশকে না জানাতে বলা হয়েছে। তাহলে তাদের লোক ওনার ছেলে এবং মেয়েকে গুলি করে মেরে ফেলবে।


গোপালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি-তদন্ত) মো. মাসুম ভূঁইয়া জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বোমা সদৃশ্য বস্তুটি বালির বস্তা দিয়ে ঘিরে রাখার ব্যবস্থা করে পুলিশি পাহারা বসানো হয়েছে।

বোমা ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়েছে। ঢাকা থেকে তারা এলে বোমা সদৃশ্য বস্তুটি প্রকৃতার্থে কী তা জানা যাবে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno