আজ- ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ বৃহস্পতিবার  বিকাল ৫:০৮

চাঞ্চল্যকর ফারুক হত্যা মামলায় সাবেক মেয়র মুক্তি সহ চার জনের জামিন নামঞ্জুর

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার আসামি পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি সহ চার আসামির জামিন আবেদন আবার নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার(৩১ মে) টাঙ্গাইলের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সাউদ হাসান এ আদেশ দেন।

জামিন আবেদনকারী চার আসামি হচ্ছেন- টাঙ্গাইল-৩(ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ আতাউর রহমান খানের ছেলে সহিদুর রহমান খান মুক্তি, ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়া আনিছুল ইসলাম রাজা ও মোহাম্মদ আলী এবং মোহাম্মদ সমীর।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি মনিরুল ইসলাম খান জানান, কারাগারে আটক থাকা ওই চার আসামির পক্ষে তাদের আইনজীবীরা সোমবার ভার্চ্যুয়ালি আদালতে জামিন আবেদন করেন।

তারা যেকোনো শর্তে আসামিদের জামিন মঞ্জুরের দাবি জানান। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষ থেকে অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি মনিরুল ইসলাম খান এবং বাদীপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন। পরে আদালত চারজনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

উল্লেখিত চার আসামির মধ্যে টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি গত ২ ডিসেম্বর আত্মসমর্পণের পর আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আনিছুল ইসলাম রাজা ও মোহাম্মদ আলী বিগত ২০১৪ সালের আগস্টে গ্রেপ্তার হন। তাদের দুজনের আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর ফারুক আহমদ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তৎকালীন সাংসদ আমানুর রহমান খান রানা এবং তার তিন

ভাই টাঙ্গাইল পৌরসভার তৎকালীন মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি, ব্যবসায়ী নেতা জাহিদুর রহমান খান কাকন ও ছাত্রলীগের তৎকালীন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সানিয়াত খান বাপ্পার জড়িত থাকার বিষয়টি উঠে আসে। মোহাম্মদ সমীরকে পুলিশ ২০১৫ সালে গ্রেপ্তার করে।

প্রকাশ, বিগত ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদের গুলিবিদ্ধ লাশ তার কলেজপাড়া এলাকার বাসার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার তিন দিন পর তার স্ত্রী নাহার আহমদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) এ মামলায় সাবেক সাংসদ আমানুর রহমান খান রানা, তার তিন ভাইসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র(চার্জশিট) জমা দেয়। এ হত্যা মামলার বর্তমানে সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno