আজ- ২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ সোমবার  ভোর ৫:০৯

বিশ্ব ঘুম দিবস আজ

 

দৃষ্টি ডেস্ক:

আজ ওয়ার্ল্ড স্লিপ ডে বা বিশ্ব ঘুম দিবস। প্রতি বছর মার্চ মাসের তৃতীয় শুক্রবার দিবসটি পালন করা হয়। ২০০৮ সালে প্রথমবার এই দিনটি পালন করে ‘ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন অব স্লিপ মেডিসিন’ এর ওয়ার্ল্ড স্লিপ ডে কমিটি।

এই কমিটির মূল উদ্দেশ- ঘুমের অভাবে শারীরিক ও মানসিক ক্ষতির বিষয়ে মানুষকে জানানো। বিশ্ব ঘুম দিবস মূলত ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন অব স্লিপ মেডিসিনের অর্থায়নে অনুষ্ঠিত বার্ষিক ইভেন্ট। এ বছর এই দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো, ‘গুণগত ঘুম, সুস্থ মন, সুখী পৃথিবী’।


আজকাল আমরা ঘুমের ক্ষেত্রে যেন ‘ব্যাংক্রাপ্ট’ হয়ে যাচ্ছি। পুরো বিশ্বের পূর্ণবয়স্ক মানুষদের দুই তৃতীয়াংশ মানুষ সঠিকভাবে ঘুমান না। ‘World health organization’ তাই এই ‘sleep loss’ এর সমস্যাকে এখন ‘এপিডেমিক ‘ঘোষণা করেছে।


আসলে খাদ্য বাসস্থানের মতো ঘুমও কিন্তু বেঁচে থাকার অপরিহার্য একটি শর্ত। খাবার কিনতে পয়সা লাগে, অথচ ঘুম কিনতে হয় না, তবু ঘুমাই না আমরা। আজকাল ৭৮-৭৯ রকমের ‘স্লিপ ডিসঅর্ডার’ আছে।


রাতের ঘুম ঠিক না হলে পরের দিন সকালে সারাদিন তার প্রভাব থাকছে। আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়, বাচ্চারা স্মৃতি হারায়, মেধা কমে যায়। বড়রা হৃৎপিণ্ডের এবং স্নায়ুর সমস্যায় পড়েন। ‘ওবেসিটি’, ‘ডায়াবেটিস’, ‘অ্যালঝাইমার’ এর সম্ভাবনা বাড়ে। ‘WHO’ বলছে ‘chronic sleep deprivation’, ক্যান্সারের সম্ভাবনা বাড়াচ্ছে কম ঘুমের জন্য।


আমাদের ‘স্লিপ হাইজিন’ মেনে চলা উচিত। ঘুম কম হওয়ার ফলেই হাইপার টেনশন, পেটের অসুখ জাতীয় একাধিক রোগ বাসা বাঁধছে শরীরে। ঘুমের গুরুত্ব যেমন আমরা উপলব্ধি করতে পারি না, তেমনই উপলব্ধি করি না বিশ্ব ঘুম দিবস বলেও একটি দিন পালন করা হয় গোটা পৃথিবীজুড়ে।


ওয়ার্ল্ড স্লিপ সোসাইটির সদস্যরা প্রত্যেকেই ঘুম নিয়ে গবেষণা করেন। ঘুমের ওষুধ ও ঘুমের গুরুত্ব নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণা চালাচ্ছেন এরা। মানুষের শরীরে ঘুমের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতন করার জন্যই এই বিশেষ দিনটি উদযাপন করা শুরু করেন তারা।ওয়ার্ল্ড স্লিপ ডে বা বিশ্ব ঘুম দিবস।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno