আজ- ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ শনিবার  রাত ৩:৩১

মধুপুরে ৬ দফা দাবিতে আদিবাসীদের বিক্ষোভ-সমাবেশ

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইলের মধুপুরে শোলাকুড়ি ইউনিয়নের পেগামারী গ্রামের গারো নারী বাসন্তী রেমার ৪০শতাংশ কলা বাগান বন বিভাগ বিনা নোটিশে কেটে ফেলার প্রতিবাদে ৬দফা দাবিতে বুধবার(১৬ সেপ্টেম্বর) ভূটিয়া-দোখলা এলাকায় গারো সম্প্রদায়ের লোকজন বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

৬ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- বাসন্তী রেমার কেটে ফেলা কলা বাগানের ক্ষতিপূরণ, বনবিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক ও দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তার অপসারণ, গারোদের আবাদী ফসলের জমি ও বসত ভিটায় সামাজিক বনায়ন বন্ধ, তাদের ভূমি অধিকার নিশ্চিত করণ, বন মামলা ও হয়রানী বন্ধকরণ ইত্যাদি।

এর আগে মধুপুরের দোখলা জাতীয় উদ্যানের প্রধান ফটকের সামনে সমবেত হয়ে গারো সম্প্রদায়ের লোকজন প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

সমাবেশে শোলাকুড়ি কলেজের প্রভাষক বিপ্লব রিচার্ড সিমসাং এর সভাপতিত্বে বাগাছাস কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জন জেত্রার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, মধুপুর উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ইয়াকুব আলী, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান যষ্টিনা নকরেক, শোলাকুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আখতার হোসেন, এসিডিএফ’র

সভাপতি অজয় মৃ, ট্রাইবাল ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি উইলিয়াম দাজেল, জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হেরিদ সিমসাং, কোচ আদিবাসী সংগঠনের সম্পাদক গৌরাঙ্গ বর্মন, ট্রাইবাল ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের

সাবেক সম্পাদক হেলিন জেত্রা, বাগাছাস মধুপুর শাখার সভাপতি নিউটন মাজি ও জিএসএফ’র শিক্ষা-সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অনিক দিব্রা প্রমুখ।

বক্তারা তাদের ৬ দফা দাবি মেনে নেওয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, আগামি ২৪ তারিখে বন বিভাগের সাথে তাদের বৈঠকে দাবি দাওয়া না মেনে নিলে সড়ক অবরোধ করার কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

এর আগে পেগামারীর কেটে ফেলা কলা বাগানের স্থান থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে ভূটিয়া গ্রাম হয়ে দোখলা জাতীয় উদ্যানের প্রধান ফটকের সামনে এসে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে মধুপুরের বন এলাকার কয়েকশ’ নারী-পুরুষ অংশ নেন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno