আজ- ২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ রবিবার  সকাল ৮:৫৪

আইন হলো ইঁদুর মারার কলের মতো :: রাষ্ট্রপতি

 

দৃষ্টি নিউজ:

dristy-pic-fo-75
রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট মো. আব্দুল হামিদ বলেছেন, আইন হলো ইঁদুর মারার কলের মতো, এর শরণাপন্ন হওয়া খুবই সহজ, কিন্তু এর থেকে বের হওয়া তত সহজ নয়। তাই দেশের নাগরিক যাতে ধনী-গরিব নির্বিশেষে আইনের সমান অধিকার পেতে পারে সে লক্ষে আইনজীবীদের অগ্রনী ভূমিকা রাখতে হবে। রাষ্ট্রপতি আইনজীবীদের অনুরোধ জানিয়ে বলেন, অসহায় বিচার প্রার্থীর মামলা বিনা পারিশ্রমিকে নিস্পত্তি করবেন। দেখবেন, এর ফলে সমাজের চেহারা পাল্টে যাবে।

তিনি বলেন, মামলার দীর্ঘসূত্রিতা হ্রাস করতে বিচার বিভাগ, আইনজীবী ও পুলিশ প্রশাসনকে সমন্বিত উদ্যোগ নিতে হবে। মনে রাখতে হবে মানুষের জন্য আইন, আইনের জন্য মানুষ নয়। তাই আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আপনাদের অব্যাহত প্রয়াস চালাতে হবে। রোববার(১৩ নভেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা অ্যাডভোকেট বার সমিতির ১২৫ বছর পূর্তির ‘হিরন্ময়’ অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছিলেন।

dristy-pic-fo-76এ সময় রাষ্ট্রপতি আরো বলেন, বিপুল সংখ্যক মানুষ আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অসচ্ছল ও সহায়-সম্বলহীন সুবিধা বঞ্চিত মানুষের দোড়গোড়ায় আইনি সহায়তা পৌছে দিতে বর্তমান সরকার আইনগত সহায়তা প্রদান আইন-২০০০ পাস করেছে। এ আইনের আওতায় সমাজের অসহায় দরিদ্র সুবিধাবঞ্চিত বিপুল সংখ্যক মানুষ সরকারি খরচে প্রতিদিন আইনি সহায়তা নিচ্ছে। রাষ্ট্রপতি আরো বলেন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা দেশের প্রতিটি নাগরিকের নৈতিক দায়িত্ব। কিন্তু আইনের বেড়াজালের কথা ভেবে অনেকেই আইনের আশ্রয় নিতে ভয় পায়।
টাঙ্গাইল জেলা অ্যাডভোকেট বার সমিতির সভাপতি মুলতান উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ফজলুর রহমান ফারুক। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের। এরআগে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ টাঙ্গাইল বার সমিতির নবনির্মিত ভবনের ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন করেন।
দুপুর ২টায় রাষ্ট্রপতি টাঙ্গাইলের সন্তোষে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাষ্ট্রপতি এবং মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর অ্যাডভোকেট মো. আবদুল হামিদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান। সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট শিাবিদ ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আলমগীর মোহাম্মদ সিরাজুদ্দীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আলাউদ্দিন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সামাবর্তনে ৫টি অনুষদের মধ্যে ৪ টি অনুষদের ১২টি বিভাগের বিএসসি(সম্মান/ইঞ্জিনিয়ারিং), বিবিএ ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ৫১ টি ব্যাচের ৯৮৭ জন শিক্ষার্থীকে স্নাতক ও ৪৯৯ জন শিক্ষার্থীকে স্নাতকোত্তরসহ মোট ১ হাজার ৪৮৬ জনকে ডিগ্রি প্রদান করেন তিনি। এছাড়াও শিক্ষাজীবনে অনন্য কৃতিত্বের জন্য ২১ জন শিক্ষার্থীকে চ্যান্সেলর, ভাইস-চ্যান্সেলর ও ডিন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno