আজ- ২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ রবিবার  সন্ধ্যা ৬:৩৮

গোপালপুরে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যা, প্ররোচণার অভিযোগে মামলা

 

দৃষ্টি নিউজ:

04
টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার হাদিরা ইউনিয়নের ভাদুরীরচর গ্রাম থেকে গত শনিবার(২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রীর মা আত্নহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে এক জনপ্রতিনিধিসহ ছয়জনকে আসামি করে রোববার(৩০ অক্টোবর) দুপুরে থানায় মামলা করেছেন। মারা যাওয়া ছাত্রী সামিয়া আক্তার ওই গ্রামের বাসিন্দা।
ওই ছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ জানায়, গ্রামের নূরুল ইসলামের মেয়ে সামিয়া স্থানীয় এক বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়ত। একসঙ্গে লেখাপড়ার কারণে গ্রামের এক কিশোরের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব হয়। গত শুক্রবার(২৮ অক্টোবর) রাত আটটার দিকে ওই কিশোর সামিয়ার বাড়িতে যায়। এ সময় স্থানীয় তোজাম্মেল ও রফিকুল নামের দুই ব্যক্তি বাইরে থেকে সামিয়ার ঘরের দরজা বন্ধ করে দেন। পরে তাঁরা আশপাশের লোকজন ডেকে জড়ো করেন। স্থানীয় লোকজন তাদের দুজনকে বিয়ে দেয়ারও  চেষ্টা করেন।
এ সময় ওই কিশোরের পক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ছবুর উদ্দিন তাঁর লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তিনি সামিয়াকে কটূক্তি ও লাঞ্ছিত করেন।
এ ঘটনার পর শনিবার(২৯ অক্টোবর) সকাল থেকে ইউপি সদস্য ছবুর ও ওই কিশোরের পরিবারের লোকজন সামিয়াকে নিয়ে গ্রামে নানা কটুকথা চাঊর করেন। এ পরিস্থিতিতে সামিয়া শনিবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে বাঁশঝাড়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করে। সন্ধ্যার দিকে তার লাশ ঝুলতে দেখে আশপাশের লোকজন গোপালপুর থানায় খবর দেন। রাতে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় রোববার(৩০ অক্টোবর) সামিয়ার মা আছমা বেগম বাদী হয়ে আত্নহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে সামিয়ার বন্ধু, ইউপি সদস্য ছবুর উদ্দিনসহ ছয়জনকে আসামি করে গোপালপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। সামিয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
গোপালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবদুল জলিল জানান, আইন সবার জন্যই সমান। লাশের ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno