আজ- ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  রাত ১২:৪১

টাঙ্গাইলের লৌহজং নদী পুনরুদ্ধার কাজ শুরু

 

দৃষ্টি নিউজ:

dristy-pic-50
দীর্ঘ ৫০ বছর পর দখল হয়ে যাওয়া টাঙ্গাইলের লৌহজং নদী রায় এবার জনসাধারণের অংশ গ্রহণে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। টাঙ্গাইল শহরের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীটি দখল আর দূষণের ফলে ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে এসে গিয়েছিল। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দীর্ঘ দিন পর অবশেষে মঙ্গলবার(২৯ নভেম্বর) সকাল থেকে সমন্বিত উদ্ধার অভিযান শুরু হল। টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এ অভিযানে শরিক হয়েছে পুলিশ প্রশাসন, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, সিটিজেন জার্নালিস্ট গ্রুপসহ কয়েক হাজার সদস্য। এদিকে নদী দখল মুক্ত করতে নিজ উদ্যোগেই দখলকারীরা তাদের স্থাপনা সারিয়ে নিচ্ছেন। অন্যদিকে কিছু ভূমিহীন মানুষ তাদের পুনর্বাসন না করে উচ্ছেদ করায় বিপাকে পড়েছেন। পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছেন তারা।dristy-pic-51
টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ঢালান-শিবপুর থেকে মির্জাপুরের বংশাই নদী পর্যন্ত প্রায় ৭০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই লৌহজং নদী। এই নদীর টাঙ্গাইল শহরের উপর দিয়ে বয়ে চলা প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকার দুপাশে কয়েক হাজার বাড়ি-ঘর অবৈধ ভাবে গড়ে উঠে নদী দখল করে সরু খালে পরিণত করেছিল। অথচ এক সময় এই নদী দিয়ে জাহাজ ও লঞ্চ চলতো শহরের আমঘাট পর্যন্ত। নদী দখল হয়ে নদীটি মৃতপ্রায় অবস্থায়। এই নদী ও নদীর পরিবেশ বাঁচাতে মঙ্গলবার(২৯ নভেম্বর) সকলের অংশগ্রহণে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। সকাল ১১টায় টাঙ্গাইল পৌর এলাকার বেড়াডোমা ব্রিজ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবৈধ স্থাপনা উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করেন জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব হোসেন। এই অভিযানে বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যদের কাঁধ কাঁধ মিলিয়ে দখলকারীরাও স্বতঃস্ফূর্ত এই কাজে অংশ নিয়েছে। নিজ উদ্যোগে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিচ্ছেন।dristy-pic-52
এই উচ্ছেদ অভিযানে একাত্নতা জানিয়ে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, সরকারি জমি অনেকেই দখল করে আছে এবং কিয়ামত পর্যন্ত থাকবে। কিন্তু নদীর জমি দখলে রাখা, পরিবেশকে গলা কেটে হত্যা করার শামিল। তিনি বলেন, ৭৬ কিলোমিটার লৌহজং নদী দখলদারদের কবল থেকে মুক্ত করতে পারলে এর সুফল শহরবাসী পাবে। এই উদ্ধার অভিযান বানের পানির মতো দ্রুত গতিতে করতে হবে। তিনি আরো বলেন, এই অভিযানে বেশি মানুষের অসুবিধা হবে না। যারা ঘরবাড়ি বানিয়ে আছে তারাও বুঝতে পারবে যে একজন মানুষ বাঁচার চাইতে হাজার, লক্ষ ও কোটি মানুষের বাঁচা অনেক ভাল।
টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব হোসনে বলেন, উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। এ অভিযান চলবে। তবে এই অভিযানে যদি কেউ ভূমিহীন হয়ে পড়ে তাদের খোঁজ-খবর নিয়ে তাদের পুনর্বাসন করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।dristy-pic-53
অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, মনোয়ারা বেগম এমপি, টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার মো. মাহবুব আলম পিপিএম, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের প্রমুখ।
এদিকে, গত কয়েক মাস যাবত লৌহজং নদী দখলমুক্ত করার ঘোষণা দিয়ে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহরে মাইকিং, নদীর ধারে মানববন্ধনসহ ফেসবুকে জনমত গঠনের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার(২৯ নভেম্বর) সকাল থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ‘লৌহজং নদী রা করি- পরিবেশ বান্ধব টাঙ্গাইল গড়ি’ স্লোগান সম্বলিত গেঞ্জি পড়ে, ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে নদীর ধারে জমায়েত হতে থাকে। এ সময় বরিশাল থেকে আসা ৬০জন স্বেচ্ছাসেবক নদী দখলমুক্ত করার কাজে অংশ গ্রহণ করে।

টাঙ্গাইল লৌহজং নদী উদ্ধারের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং টাঙ্গাইলের মানুষ ও পরিবেশ রক্ষা পাবে এটাই টাঙ্গাইলবাসীর দাবি।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno