আজ- ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ বৃহস্পতিবার  রাত ২:১২

টাঙ্গাইল পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলীসহ তিনজন সাময়িক বরখাস্ত

 

দৃষ্টি নিউজ:

টাঙ্গাইল শহরের সাথে জেলার পশ্চিমাঞ্চলে চলাচলের সড়কে বেড়াডোমা নামক স্থানে সেতু নির্মাণ কাজে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে টাঙ্গাইল পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী শিব্বির আহমেদ আজমী সহ তিন প্রকৌশলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ওই সেতু নির্মাণে অনিয়ম হচ্ছে- এমনটা জানার পরেও আইনগত পদক্ষেপ না নেওয়ায় টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ পৌর-১ শাখার উপ-সচিব আব্দুর রহমান স্বাক্ষরিত ওই পত্রগুলো রোববার(২০ নভেম্বর) মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।


সাময়িক বরখাস্ত হওয়া প্রকৌশলীরা হচ্ছেন- টাঙ্গাইল পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী শিব্বির আহমেদ আজমী, সহকারী প্রকৌশলী রাজীব গুহ ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী জিন্নাতুল হক। তাদের বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও অসদাচরনের অভিযোগে বিভাগীয় মামলা দায়ের করার সুপারিশ করা হয়েছে। পত্রে অভিযোগনামা প্রাপ্তির ১০ কার্য দিবসের মধ্যে তাদেরকে লিখিতভাবে স্থানীয় সরকার বিভাগে জানানোর জন্য বলা হয়েছে।


জানা যায়, টাঙ্গাইল জেলা সদরের সঙ্গে জেলার পশ্চিমাঞ্চলে যাতায়াতের সড়কে বেড়াডোমা নামক স্থানে লৌহজং নদীর উপর স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণাধীন টাঙ্গাইল পৌরসভা অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় তিন কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে আট মিটার প্রস্থ ও ৪০ মিটার দীর্ঘ সেতু নির্মাণ করা হচ্ছিল।

ডিজাইন অনুসরণ না করে নির্মাণ কাজ করায় সেতুটি নির্মাণাধীন অবস্থায় দেবে যায়। এ বিষয়ে এলাকাবাসীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ও দুদকের জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।


সাময়িক বরখাস্তের ওই পত্রে বলা হয়েছে- নির্মাণাধীন সেতুটির ঢালাই কাজের পূর্বে সেণ্টারিং ও সাটারিংয়ের সময় ঠিকাদার ড্রয়িং ও ডিজাইন অনুসরণ না করে বল্লি ও বাঁশের খুঁটি ব্যবহার করেন। সাময়িক বরখাস্ত হওয়া ব্যক্তিরা শুধু চিঠির মাধ্যমে ঠিকাদারকে নিষেধ করেন। তারা ঢালাইয়ের কাজ বন্ধ করার কোন ব্যবস্থা নেননি। বরং ঢালাইয়ের সময় উপস্থিত ছিলেন। এ বিষয়কে দায়িত্বে চরম অবহেলা প্রদর্শন হিসেবে বরখস্তের পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।


এদিকে, পৌরসভার প্রকৌশলীদের সঙ্গে ঠিকাদার পক্ষের স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজন অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং সেতু নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে জেনেও কোন পদক্ষেপ না নেওয়া, কাজের অগ্রগতির তুলনায় অতিরিক্ত বিল প্রদান করায় মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তাকে আগামী ১০ কার্য দিবসের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে।


সেতু নির্মাণে ডিজাইন ও প্রাক্কলন যথাযথ অনুসরণ না করায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘ব্রিকস অ্যান্ড বিল্ডিং লিমিটেড’ এবং ‘দ্যা নির্মিতিকে(জেভি)’ কালো তালিকাভুক্ত করাসহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


তিন প্রকৌশলীকে সাময়িক বরখাস্ত ও কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রসঙ্গে মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর জানান, তারা মন্ত্রাণালয়ের ওয়েব সাইটের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত চিঠি পেয়েছেন। তিনি নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই চিঠির জবাব দিবেন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno