আজ- ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ বুধবার  সকাল ৮:৫৩

টাঙ্গাইল-ভূঞাপুর সড়কে ব্রিজের পাটাতন দেবে যান চলাচল বন্ধ

 

দৃষ্টি নিউজ:

dristy-69
টাঙ্গাইল-ভূঞাপুর সড়কে কালিহাতী উপজেলার রৌহা ব্রিজের পাটাতন দেবে গিয়ে রোববার মধ্য রাত থেকে মঙ্গলবার (২১ মার্চ) দুপুর পর্যন্ত সকল প্রকার যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে ওই সড়কে চলাচলকারীদের দুর্ভোগ মারাম্মক আকার ধারণ করেছে। ওই সড়কের ১২টি ব্রিজের মধ্যে ৮টিই ঝুঁকিপূর্ণ বলে ইতোপূর্বে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলেও কর্তৃপক্ষ জোড়াতালি দিয়ে দায়িত্ব পালন করে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঝুঁকিপূর্ণ রৌহা ব্রিজের পূর্ব পাশের পাটাতন দেবে গেছে। ফলে সড়ক দিয়ে মালবাহী ও যাত্রীবাহী ভারি যানবাহনগুলো চলাচল করতে পারছেনা। সোমবার সিএনজি চালিত অটোরিকশাগুলো ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করলেও মঙ্গলবার সকালে সওজ’র কর্মীরা সংস্কার কাজ করায় সড়কে সব ধরণের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
এদিকে, এলেঙ্গা থেকে ভূঞাপুর পর্যন্ত এই সড়কে লুৎফর রহমান মতিন মহিলা ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন রাজাবাড়ী ব্রিজ, রৌহা, ফুলতলা, সয়া, নারান্দিয়া বাসস্ট্যান্ড ব্রিজ, সিংগুরিয়া, কাগমারী পাড়া ও শিয়ালকোল ব্রিজ দীর্ঘদিন যাবৎ অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। কোন ব্রিজের দুই পাশের রেলিং ভেঙ্গে গেছে, কোন ব্রিজের মাঝখানে গর্ত হয়ে গেছে। আবার কোনটার অবস্থা একেবারেই নাজুক।
টাঙ্গাইল-ভূঞাপুর সড়কে জেলার কালিহাতী, ভূঞাপুর ও ঘাটাইলসহ কয়েকটি উপজেলার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন শ’ শ’ যানবাহনে চলাফেরা করেন। তারাকান্দি সার কারখানার মালামাল আনা-নেওয়ার প্রধান সড়কও এটিই। এছাড়া বঙ্গবন্ধুসেতু-ঢাকা মহাসড়কের যানবাহনগুলো বিকল্প সড়ক হিসেবে এ সড়কই ব্যবহার করে। বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিয়মিত এ সড়কে যাতায়াত করেন। সড়কটি বন্ধ থাকায় স্থানীয় স্বাভাবিক জনজীবনে ব্যাপক বিরূপ প্রভাব পড়েছে।
স্থানীয়রা জানায়, কিছুদিন আগে সয়া ব্রিজ ভেঙ্গে পড়লে কয়েকদিন যান চলাচল বন্ধ থাকে। টাঙ্গাইলের সড়ক ও জনপথ বিভাগ সেখানে দায়সারাভাবে একটি বেইলী ব্রীজ নির্মাণ করে। ওই বেইলী ব্রিজটি আবারও মারাত্মন হুমকির মুখে।
ভূঞাপুর থেকে টাঙ্গাইলগামী আলতাফ হোসেন নামের এক যাত্রী বলেন, শুধু রৌহা ব্রিজ নয় এলেঙ্গা থেকে ভূঞাপুর পর্যন্ত প্রায় সকল ব্রিজই মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ। যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে ভয়াবহ দুর্ঘটনা। ব্রিজগুলো এতোদিন যাবৎ ঝুঁকিপূর্ণ থাকলেও সংস্কার বা মেরামতের কোন উদ্যোগ কর্তৃপক্ষেন নেই।
সড়কে চলাচলকারী হারুন অর রশিদ নামের এক বাসচালক বলেন, এই সড়কের প্রায় সকল ব্রিজের অবস্থাই খুবই খারাপ। ব্রিজগুলোর উপরে গাড়ি নিয়ে উঠলে মনে হয় এখনই ভেঙ্গে পড়ল।
কালিহাতী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার বলেন, এই সড়কের অধিকাংশ ব্রিজগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হলেও মেরামত কিংবা সংস্কারে কোন উদ্যোগ নেই। সড়ক ও জনপথ বিভাগের টাঙ্গাইলের কর্তৃপক্ষের তেমনটা ভূমিকা লক্ষ করা যায় না। এবারও তারা জোড়াতালি দিয়ে কাজ সারার চেষ্টাই করছে।
এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের টাঙ্গাইলের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল হাকিম বলেন, ব্রিজটি সাময়িক মেরামতের জন্য আমাদের লোক কাজ করছে। এ কারণে মঙ্গলবার সকাল থেকে সড়কে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। কাজ শেষ হতে কত সময় লাগবে সেটা বলা যাচ্ছে না, তবে বিকাল নাগাদ কাজ শেষ হতে পারে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno