আজ- ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ শনিবার  বিকাল ৫:১২

দুই বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা

 

দৃষ্টি নিউজ:

দেশে প্রতিদিন বাড়ছে তাপমাত্রা। তবে তা অসহনীয় হয়ে ওঠেনি এখনো। মাঝেমধ্যে দক্ষিণের বাতাস শীতল স্পর্শ বুলিয়ে দেয় বরং। বৃষ্টির দেখা নেই অনেক দিন। চারদিকে ধুলোয় ধূসর। পথ চলতে গিয়ে আশপাশের গাছের পাতায় ধুলোর পরত পড়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

দেশের বেশির ভাগ এলাকায় দীর্ঘ সময় বৃষ্টির দেখা ছিল না। বুধবার(২২ ফেব্রুয়ারি) সেই ধারার ব্যতিক্রম হয়েছে। ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, আজ বৃহস্পতিবারও(২৩ ফেব্রুয়ারি) দুই বিভাগে কিছু বৃষ্টি হবে। তবে রাজধানীতে বৃষ্টির সম্ভাবনা আপাতত কম।


আজ বৃহস্পতিবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া আগামি ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাসহ ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।


আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, দেশের প্রায় বেশির ভাগ এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বেড়েছে। তবে বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। তবে তাপমাত্রা বৃদ্ধির ধারা এখন অব্যাহত থাকবে।


বুধবার দেশের চারটি এলাকার বৃষ্টি রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর মধ্যে তেঁতুলিয়ায় বৃষ্টি হয়েছে ১ মিলিমিটার, সিলেটে ৫ মিলিমিটার, ময়মনসিংহে ১১ মিলিমিটার এবং নেত্রকোনায় সর্বোচ্চ ১৯ মিলিমিটার।


আজ বৃহস্পতিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়, ১৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল বুধবার এখানেই দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ১৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কমলেও বেড়েছে রাজধানীতে। গতকাল ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ সেটা বেড়ে হয়েছে ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno