আজ- ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ শনিবার  সকাল ১০:৫৪

ধর্ষকের কৌমার্য নিয়েও প্রশ্ন তোলা উচিৎ…..বিগ বি

 

দৃষ্টি ডেস্ক:

amitabhbachchan
কিছুদিন আগেই ভারতে মুক্তি পেয়েছে অভিতাভ বচ্চন অভিনীত ‘পিঙ্ক’ ছবিটি। লিঙ্গ বৈষম্য ও ধর্ষণ বিরোধী এ ছবিটি মুক্তি ঠিক দু’দিন আগেই দিল্লির এক পার্কে দুই কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় দারুণ ক্ষুব্ধ বিগ বি বলেছেন, নারীদের কুমারিত্ব নিয়ে প্রকাশ্যে প্রশ্ন তোলা গেলে পুরুষদেরও একই প্রশ্নের সম্মুখীন করা উচিৎ।
‘পিঙ্ক’ ছবির ট্রেলার মুক্তির দিন সাংবাদিকদের কাছে ‘ধর্ষণ-মুক্ত’ ভারত দেখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছিলেন তিনি। কিন্তু একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা মর্মাহত করেছে সত্তোরোর্ধ এ নারীবাদী অভিনেতাকে।
ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে অমিতাভ বলেন, ‘‘আমি বরাবরই স্বপ্ন দেখি একটি ‘ধর্ষণ-মুক্ত’ ভারতের। কিন্তু একের পর এক সহিংসতার ঘটনা আমার মন ভেঙে দিচ্ছে। আমরা এমন সমাজ চাই না যেখানে আমাদের মেয়েরা নিরাপদ নয়। আমাদের সমাজ ব্যবস্থা ও সা্মাজিক মুল্যবোধই এর জন্য দায়ী। আমার মনে হয় আমাদের সচেতন হওয়ার সময় এসেছে।’’
‘পিঙ্ক’ ছবিতে অভিতাভ বচ্চনকে দেখা গেছে একজন পেশাদার আইনজীবী চরিত্রে। একজন ধর্ষিতা নারীকে আদালতে যেভাবে হেনস্থার শিকার হতে হয় তাই-ই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এ ছবিতে।
এ প্রসঙ্গে বিগ বি নিজের ভাবনা তুলে ধরে বলেন, ‘আমি সিনেমায় যা করেছি তাই আমাদের দেশে হয়ে থাকে। একটি মেয়ে ধর্ষণের শিকার হলে তাকে প্রশ্ন করা হয় তার সতীত্ব নিয়ে। কিন্তু ধর্ষককে কি সেই প্রশ্ন করা হয়? সতীত্ব কি কেবল মেয়েদের?’
অমিতাভ আরও বলেন, আমরা একটি মেয়েকে যখন তার কুমারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন করি তখন আমাদের চোখে থাকে একটি জিজ্ঞাসা চিহ্ন। অর্থাৎ সমাজ জানতে চায় সে আসলেই কুমারী কি না। কিন্তু একই প্রশ্ন যখন একটি ছেলেকে করা হয় তখন আমাদের চোখে থাকে বিস্ময় চিহ্ন। অর্থাত এটা যেন খুবই গর্বের একটি বিষয়।
কেন একই ব্যাপার একজন নারীর জন্য লজ্জার আর একজন পুরুষের জন্য গর্বের বিষয় হবে? কেন আমরা মেয়েদের কুমারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলি কিন্তু ছেলেদের কৌমার্য্য  নিয়ে প্রশ্ন তুলি না? এ বৈষম্য যতদিন দূর হবে না ততদিন আমরা ধর্ষণের মত অপরাধ বন্ধ করতে পারবো না, বলেন বিগ বি।
সুজিত সিরকারের ‘পিঙ্ক’ ছবির মাধ্যমেই প্রথমবারের মত একজন খল আইনজীবীর চরিত্রে অভিনয় করলেন অমিতাভ। এ ছবিতে প্রধান চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন তাপসি পান্নু, আন্দ্রিয়া তারিং, কৃতি কুলহারি ও আঙ্গাদ বেদি।
চতুর আইনজীবী চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে অমিতাভ বলেন, এ ছবিতে অভিনয়ের আগে আমার কোনো ধারণাই ছিলো না কিভাবে আদালতে আইনজীবীরা আসামীদের জেরা করে। শুট্যিং-এর সময় সেটে একজন সত্যিকারের আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন। তিনি আমাদের অনেক সাহায্য করেছেন। আমাদের দেশে সত্যিই এমন অনেক উকিল আছেন যারা টাকার জন্য সব করতে পারে। আমি সেরকম একটি চরিত্রই ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করেছি।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno