আজ- ২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ রবিবার  বিকাল ৫:৫৯

রণদা প্রসাদসহ ৩৭ জন হত্যা :: আসামিকে হাজিরের নির্দেশ

 

দৃষ্টি নিউজ:

dristy-pic-fo-31
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দানবীর রণদা প্রসাদসহ ৩৭ জন হত্যা মামলায় এলাকার কুখ্যাত রাজাকার মাওলানা আব্দুল ওয়াদুদ মিয়ার ছেলে মাহবুব আলীকে (৬৫) আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারকের কাছে হাজির করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
মাহবুব আলী বর্তমানে টাঙ্গাইল কারাগারে নাশকতা মামলায় আটক। বৃহস্পতিবার(৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মির্জাপুর থানা পুলিশ আগামী ৭ নভেম্বর মাহবুবকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে হাজিরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।
জানা গেছে, ১৯৭১ সালে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় পাকিস্তানি আল বদর বাহিনীর অন্যতম কমান্ডার কুখ্যাত রাজাকার মাওলানা আব্দুল ওয়াদুদ, তার ছেলে মাহবুব ও আব্দুল মান্নানসহ তার সহযোগীরা হত্যাযজ্ঞ চালায়। তারা মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামের কৃতী সন্তান ও কুমুদিনী ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা ও তার এক মাত্র ছেলে ভবানী প্রসাদ সাহা রবিসহ মির্জাপুরে অন্তত ৩৭ জন বাঙালি নারী-পুরুষকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এছাড়া গণধর্ষণ, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে শত শত বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দেয় বলে সেদিনের প্রত্যক্ষদর্শীরা দাবি করেছেন।
তাদের অত্যাচারের শিকার এলাকার লোকজন ও বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা জোট বেঁধে ১৯৭১ সালের শেষ দিকে প্রকাশ্য দিবালোকে রাজাকার কমান্ডার মাওলানা আব্দুল ওয়াদুদকে পিটিয়ে হত্যা করলেও তার ছেলে মাহবুব ও মান্নানসহ অপর সহযোগীরা পালিয়ে যায়।
দীর্ঘ ৪৫ বছর পর মির্জাপুরে কুমুদিনী পরিবারের সহযোগিতায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের পক্ষ থেকে বাদী হয়ে গত ১৮ এপ্রিল ৩৭ জনকে হত্যার অভিযোগে মামলা করা হয়। মামলার পর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রধান প্রসিকিউটর কো-অর্ডিনেটর মুহাম্মদ আব্দুল হান্নান, সহকারী প্রসিকিউটর এম সানাউল হক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান এবং রুপল দাস কুমুদিনী কমপ্লেক্সসহ মির্জাপুর গ্রাম পরিদর্শন করেন এবং নিহত ও আহতদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন।
এ সময় কুমুদিনী কল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক রাজিব প্রসাদ সাহা, ভাষাকন্যা ও পরিচালক (শিক্ষা) প্রতিভা মুৎসুদ্দি, পরিচালক শ্রীমতি সাহা, কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. দুলাল চন্দ্র পোদ্দার, মির্জাপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা দুর্লভ চন্দ্র বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, একটি নাশকতা মামলায় মাহবুব টাঙ্গাইল কারাগারে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মাহবুবকে আগামী ৭ নভেম্বর হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। প্রশাসন বিধিমোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno