আজ- ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার  রাত ১২:০৮

সখীপুরে বিদ্যুৎ কার্যালয়ে গ্রাহকদের হামলা

 

দৃষ্টি নিউজ:

timthumb-php
টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবিতে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছেন বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা। তারা লাঠিসোঁটা নিয়ে ভাঙচুর করেছেন সখীপুরে অবস্থিত কার্যালয়ের জানালার কাচ ও আসবাব।
বৃহস্পতিবার(৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার দাড়িয়াপুর, যাদবপুর, বেড়বাড়ি ও চাকদহ গ্রামের শতাধিক গ্রাহক একত্র হয়ে সাত কিলোমিটার গাড়িতে চেপে এসে সখীপুর বিদ্যুৎ কার্যালয়ে হামলা চালান। হামলায় ওই কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী আল আমিন, দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল শামীম ও স্থানীয় বাসিন্দা আবু হাসান আহত হয়েছেন। আহত সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বিদ্যুৎ কার্যালয়ের সামনে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
বিক্ষুব্ধ গ্রাহকেরা জানান, উপজেলার দাড়িয়াপুর, যাদবপুর, বেড়বাড়ি ও চাকদহ গ্রামে কয়েক মাস ধরে ২৪ ঘণ্টায় তিন-চার ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকে। অথচ বিদ্যুৎ বিল আসে দ্বিগুণ। কারও কারও তিন গুণ।
দাড়িয়াপুর গ্রামের আবদুর রহিম নামের এক গ্রাহক অভিযোগ করেন, সাত দিন ধরে ওই চার গ্রামে বিদ্যুৎ নেই। এ কারণেই গ্রাহকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে হামলা চালান।
এদিকে, হামলা ঠেকাতে গিয়ে হামলাকারীদের হাতে লাঞ্ছিত হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল শামীম। তিনি বলেন, গ্রাহকেরা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ না পেয়ে এবং ভৌতিক বিল পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে হামলা চালিয়েছেন।
সখীপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ) মো. শাহাদত আলী বলেন, ‘ভাঙচুরের সময় আমি টাঙ্গাইলে জরুরি সভায় ছিলাম। ভাঙচুরের খবর পেয়ে সখীপুর ছুটে এসেছি। কার্যালয়ের সব জানালার কাচসহ আসবাব ভাঙচুর করে অনেক ক্ষতি করা হয়েছে। আমার এক সহকর্মী প্রকৌশলীকেও তারা মারধর করেছেন। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেব।’
সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মাকছুদুল আলম বলেন, ভাঙচুরের খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখানে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করেছে

 
 
 
 
 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মু. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল
আশ্রম মার্কেট ২য় তলা, জেলা সদর রোড, বটতলা, টাঙ্গাইল-১৯০০।
ইমেইল: dristytv@gmail.com, info@dristy.tv, editor@dristy.tv
মোবাইল: +৮৮০১৭১৮-০৬৭২৬৩, +৮৮০১৬১০-৭৭৭০৫৩

shopno